সরকারি ছুটি বাড়বে কি না জানা যাবে বৃহস্পতিবার

এইমাত্র জাতীয় জীবন-যাপন

নিজস্ব প্রতিবেদক : প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব রুখতে দেশে টানা ৬৮ দিনের ছুটি চলছে। টানা ছুটির কারণে ইতোমধ্যে দেশের অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডে স্থবিরতা নেমেছে। কর্মহীন হয়ে বিপাকে পড়েছেন নানা শ্রেণি-পেশার মানুষ। যদিও গণমাধ্যমে খবর রটেছে সরকারি সাধারণ ছুটি আর নাও বাড়তে পারে। এখানেই অবসান ঘটতে পারে দেশের ইতিহাসের সবচেয়ে লম্বা এ সাধারণ ছুটির।


বিজ্ঞাপন

তবে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন জানিয়েছেন, সাধারণ সরকারি ছুটি বাড়বে কি না এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের কথা জানা যাবে আগামীকাল বৃহস্পতিবার ( ২৮ মে)। তিনি গণমাধ্যমকে বলেন, ‘ছুটির ব্যাপারে বৃহস্পতিবার একটা সিদ্ধান্ত আসতে পারে। এখন প্রতিদিনই করোনারোগী বাড়ছে, সে বিষয়টাও দেখতে হবে।’


বিজ্ঞাপন

তিনি আরো বলেন, ‘ক্ষুধায় যাতে কেউ কষ্ট না পায়, সবাই যেন খাদ্য সংস্থান করে খেতে পারে, কর্মকাণ্ড করতে পারে; আমরা ভবিষ্যতকে অনিশ্চিত করবো না। ঝড় একটার পর একটা আসবে, বিভিন্ন দুর্যোগ আমাদেরই মোকাবেলা করে এগোতে হবে।’

প্রধানমন্ত্রী কাজ করে নিজের ভাগ্য পরিবর্তনের সুযোগ তৈরি করে দিয়েছেন জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘সেটা মাথায় রেখে হয়তো তিনি ছুটির বিষয়ে চিন্তা-ভাবনা করছেন। এখন ছুটির নির্দেশনা আসবে কিনা জানি না, তবে ২৮ তারিখে সব জানা যাবে।’

এর আগে মঙ্গলবার ঢাকা মহানগর দোকান মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. আরিফুর রহমান টিপু স্বাক্ষরিক এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আগামী ৩০ মে থেকে খুলছে দেশের বিপণিবিতান ও মার্কেটগুলো।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, মহানগর দোকান মালিক সমিতির গৃহীত সিদ্ধান্ত অনুযায়ী মহানগরের সব বাণিজ্য বিতান ও শপিং মল ইদের দিন থেকে ২৯ মে শুক্রবার পর্যন্ত বন্ধ থাকবে। ফলে আগামী ৩০ মে শনিবার থেকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নির্দেশনা ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিধি-নিষেধ মেনে যথা নিয়মে প্রতিষ্ঠান খোলা রাখা যাবে।