১১৯ কোটি টাকার কোম্পানির রিটেইন আর্নিংস ঋণাত্মক ১০৪ কোটি  : সেন্ট্রাল ফার্মার অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখার সক্ষমতা নিয়ে শঙ্কা

Uncategorized অপরাধ অর্থনীতি আইন ও আদালত ঢাকা বানিজ্য বিশেষ প্রতিবেদন রাজধানী

 

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক  :  শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত সেন্ট্রাল ফার্মাসিউটিক্যালসের সমস্যার কোন শেষ নাই। যাতে কোম্পানিটির ব্যবসা পরিচালনা করা বা টিকিয়ে রাখা নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন নিরীক্ষক। তারপরেও লোকসানি এ কোম্পানিটির শেয়ার দর গত কিছুদিন ধরে টানা বাড়ছে। কোম্পানিটির ২০২২-২৩ অর্থবছরের আর্থিক হিসাব নিরীক্ষায় এই শঙ্কার কথা জানিয়েছেন নিরীক্ষক।


বিজ্ঞাপন

নিরীক্ষক গণমাধ্যম কে  জানিয়েছেন, কোম্পানিটির ২০২২-২৩ অর্থবছরে শেষে বা গত ৩০ জুন পূঞ্জীভুত লোকসান বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১০৪ কোটি ৩০ লাখ টাকায়। যে কোম্পানিটি ঋণের কিস্তি পরিশোধে ব্যর্থ। যার ঋণের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ২৬ কোটি ৮৫ লাখ টাকা। যা পরিশোধে কোনভাবেই অর্থের যোগানের সৃষ্টি করতে পারেনি। যে কোম্পানিটির পরিচালণ নগদ প্রবাহ ঋণাত্মক।

সেন্ট্রাল ফার্মার এ সমস্যার কারনে কোম্পানিটির ব্যবসা পরিচালনা বা টিকিয়ে রাখার সক্ষমতা নিয়ে খুবই শঙ্কা তৈরী করেছে বলে গণমাধ্যম কে জানিয়েছেন নিরীক্ষক।

উল্লেখ্য, ২০১৩ সালে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত হওয়া সেন্ট্রাল ফার্মার পরিশোধিত মূলধনের পরিমাণ ১১৯ কোটি ৮০ লাখ টাকা। এরমধ্যে শেয়ারবাজারের বিভিন্ন শ্রেণীর (উদ্যোক্তা/পরিচালক ব্যতিত) বিনিয়োগকারীদদের মালিকানা ৭৪.১১ শতাংশ। কোম্পানিটির গত রবিবার ১০ ডিসেম্বর, লেনদেন শেষে শেয়ার দর দাঁড়িয়েছে ২৪.৩০ টাকায়।

যে শেয়ারটির দর গত ১৩ নভেম্বর ছিল ১২.৯০ টাকায়। যেখান থেকে এক মাসের ব্যবধানে ২৪.৩০ টাকায় উঠে এসেছে। এক্ষেত্রে শেয়ার দর বেড়েছে ১১.৪০ টাকা বা ৮৮ শতাংশ। যার পেছনে কোন যৌক্তিক কারণ খুঁজে পায়নি ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ কর্তৃপক্ষ।

পরবর্তীতে সেন্ট্রাল  ফার্মার ঔষধ তৈরি ও বাজারজাতের বিভিন্ন অনিয়ম নিয়ে পরবর্তী পর্বে বিস্তারিত তুলে ধরা হবে।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *