বিএফডিএ অ্যাওয়ার্ড পেলো বিঞ্জ ওয়েব ফিল্ম বিএফডিএ অ্যাওয়ার্ডে সেরা বিঞ্জ অরিজিনাল ওয়েব ফিল্ম

Uncategorized ঢাকা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিনোদন বিশেষ প্রতিবেদন রাজধানী

নিজস্ব প্রতিবেদক  : জনপ্রিয় নির্মাতা শিহাব শাহীনের ‘বাবা সামওয়ান ইজ ফলোয়িং মি’ জিতে নিয়েছে বাংলাদেশ ফিল্ম ডিরেক্টর অ্যাসোসিয়েশন (বিএফডিএ) অ্যাওয়ার্ড। ২০২৩ সালে শ্রেষ্ঠ ওয়েব ফিল্ম এ ভূষিত হয়েছে বিঞ্জ অরিজিনাল ওয়েব ফিল্ম ‘বাবা সামওয়ান ইজ ফলোয়িং মি’।


বিজ্ঞাপন

২০২৩ সালে ওয়েব ফিল্ম বিভাগে শ্রেষ্ঠ ওয়েব ফিল্মের পাশাপাশি শ্রেষ্ঠ কাহিনীকার ও শ্রেষ্ঠ পরিচালক হিসেবে অ্যাওয়ার্ড জিতেছেন ‘বাবা সামওয়ান ইজ ফলোয়িং মি’ এর নির্মাতা শিহাব শাহীন।গত রোববার সন্ধ্যায় রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির উদ্যোগে ‘বিএফডিএ অ্যাওয়ার্ড ২০২২-২৩’ প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ আলী আরাফাত।

জনপ্রিয় ওটিটি প্ল্যাটফর্ম বিঞ্জ এ মুক্তি পায় ‘বাবা সামওয়ান ইজ ফলোয়িং মি।’ বিষ্ণু অরিজিনাল ওয়েব ফিল্মটি আগামী ১৫ মে থেকে সম্পূর্ণ ফ্রিতে দর্শকরা দেখতে পাবেন বিঞ্জ ইউটিউব চ্যানেল ও ফেসবুক পেইজে।বিঞ্জ এর হেড অব কন্টেন্ট উম্মে খাইরুন ইসলাম (সুইজী) বলেন, ‘কন্টেন্টপ্রেমিদের জন্য শিহাব শাহীনের অ্যাওয়ার্ড জয়ী এই ফিল্মটি আনতে পেরে আমরা রোমাঞ্চিত। শিহাব শাহীনের এই অনবদ্য অর্জন তাঁর ব্যতিক্রমী মেধা ও প্রয়াসের বহিঃপ্রকাশ।’

বিঞ্জ সবসময় চেষ্টা করে দর্শকদের রুচির সাথে সামঞ্জস্য রেখে নতুন নতুন কন্টেন্ট উপহার দিতে। এরই ধারাবাহিকতায় বিএফডিএ পেয়েছে “বাবা সামওয়ান ইজ ফলোয়িং মি”। দর্শকের সাথে এই আনন্দ ভাগাভাগির জন্য বিঞ্জ প্রথমবারের মতো আগামী ১৫ মে থেকে বিঞ্জ’র ইউটিউব ও ফেসবুকে দর্শক শ্রোতাদের জন্য এই রোমাঞ্চকর ওয়েব ফিল্মটি স্ট্রিম করার সুযোগ দিচ্ছে সম্পূর্ণ ফ্রি-তে। বিষ্ণু হল একটি “অল ইন ওয়ান” অফুরন্ত বিনোদন ভিত্তিক স্ট্রিমিং পরিষেবা, যেখানে বিভিন্ন জঘানার ওয়েব সিরিজ, সিনেমা, কে-ড্রামাস, স্পোর্টস এবং আরও অনেক কিছুর বিস্তৃত এবং বৈচিত্র্যময় সংগ্রহ-যা বিভিন্ন শ্রেণীর দর্শকের চাহিদা পূরণ করতে পারে।

রবি সম্পর্কে: রবি আজিয়াটা লিমিটেড (‘রবি’) একটি পাবলিক লিমিটেড কোম্পানি যেখানে এশিয়ার টেলিযোগাযোগ বাজারের অন্যতম কোম্পানি মালয়েশিয়াভিত্তিক আজিয়াটা গ্রুপ বারহাদের সিংহভাগ মালিকানা (৬১.৮২%) রয়েছে। এছাড়া রবিতে পাবলিক শেয়ারহোল্ডারদের (১০%) পাশাপাশি বিশ্ব টেলিযোগাযোগ বাজারের অন্যতম কোম্পানি ভারতী এয়ারটেলের (ভারত) শেয়ার রয়েছে ২৮.১৮%। রবি বাংলাদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম মোবাইল ফোন অপারেটর। দেশের মানুষের জন্য প্রতিনিয়ত নতুন নতুন ডিজিটাল সেবা আনছে কোম্পানিটি। দেশের প্রতিটি প্রান্তে উদ্ভাবনী সেবা পৌঁছে দেয়ার উদ্দেশ্যে রবি অব্যাহত বিনিয়োগের মাধ্যমে শক্তিশালী টেলিযোগাযোগ অবকাঠামো গড়ে তুলেছে। দেশজুড়ে থাকা এ অবকাঠামো ডিজিটাল পণ্য ও সেবা সরবরাহের পাশাপাশি ক্রমবর্ধমান ডিজিটাল প্রতিবেশ গড়ে তুলতে মুখ্য ভূমিকা পালন করছে। শহর কিংবা গ্রাম যেখানেই হোক রবির হাত ধরে ডিজিটাল বাংলাদেশের পথে হাটছে দেশবাসী।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *