নড়াইলে বঙ্গবন্ধুুর ৪৭তম শাহাদৎবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস নানা আয়োজনে পালিত

Uncategorized আন্তর্জাতিক

মো:রফিকুল ইসলাম,নড়াইলঃ
নড়াইলে যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালিত হয়েছে। কর্মসূচির মধ্যে ছিল জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন, কালোব্যাজ ধারন, বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পমাল্য অর্পন, দোয়া ও বিশেষ মোনাজাত, র‍্যালি,আলোচনাসভা ও যুব ঋৃণ বিতরণ। সোমবার (১৫ আগস্ট) জেলা প্রশাসনের আয়োজনে সকাল ৯টায় নড়াইল শহরে পুরাতন বাস টার্মিনাল গোলচত্বরে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা,জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান, পুলিশ সুপার প্রবীর কুমার রায়, নড়াইল পৌরসভার মেয়র আনজুমান আরা, জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সুবাস চন্দ্র বোস, সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন খান নিলু, মুক্তিযোদ্ধা, যুবলীগ, মহিলা আওয়ামী লীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, কৃষকলীগ, জেলা ছাত্রলীগ, সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানসহ সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনের পক্ষ থেকে পুস্পমাল্য অর্পণ করা হয়। এরপর পুরাতন বাস টার্মিনাল গোলচত্বর থেকে এক শোক র‌্যালি বের হয়। শোক র‌্যালিটি শহর প্রদক্ষিণ শেষে জেলা শিল্পকলা একাডেমি চত্বর গিয়ে শেষ হয়। র‌্যালি শেষে জেলা শিল্পকলা চত্বরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। এরপর শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে আলোচনা, যুব ঋৃণ চেক বিতরণ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। উল্লেখ্য,১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস। ১৯৭৫ সালের এই দিনে ঘাতকরা সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি,জাতির পিতা রাষ্ট্রপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে নির্মমভাবে হত্যা করে। এদিন জাতির পিতার সহধর্মিনী বঙ্গমাতা ফজিলাতুন নেছা মুজিব,তিন পুত্র-বীর মুক্তিযোদ্ধা ক্যাপ্টেন শেখ কামাল,বীর মুক্তিযোদ্ধা লেফটেন্যান্ট শেখ জামাল,দশ বছরের শিশুপুত্র শেখ রাসেল,পুত্রবধূ সুলতানা কামাল ও রোজী জামাল,একমাত্র সহোদর বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ আবু নাসের,কৃষকনেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রব সেরনিয়াবাত,যুবনেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ ফজলুল হক মণি ও তার অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী আরজু মণি,বেবী সেরনিয়াবাত,আরিফ সেরনিয়াবাত,সাংবাদিক শহীদ সেরনিয়াবাত,সুকান্ত বাবু, আব্দুল নঈম খান রিন্টুসহ পরিবারের ১৮ জন সদস্যকে ঘৃণ্য ঘাতকরা এ দিনে হত্যা করে। রাষ্ট্রপতির সামরিক সচিব ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জামিল এবং কর্তব্যরত পুলিশের বিশেষ শাখার এএসআই সিদ্দিকুর রহমান নিহত হন। ঘাতকদের কামানের গোলার আঘাতে মোহাম্মদপুরে একটি পরিবারের বেশ কয়েকজন হতাহত হন।


Leave a Reply

Your email address will not be published.