জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ১৯৬৪ সালের পর প্রথম যেখানে শুরু হল সিজারিয়ান সেকশন অপারেশন সার্ভিস

Uncategorized সাস্থ্য


নিজস্ব প্রতিবেদক ঃ ১৯৬৪ সালে প্রতিষ্ঠার পর জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে একটি ফুটুফুটে সুস্থ কন্যা সন্তানের জন্মের মাধ্যমে সিজারিয়ান সেকশন অপারেশন
সার্ভিস শুভ উদ্বোধন হল গতকাল বৃহস্পতিবার ২৫ আগস্ট ।

ওটি কমপ্লেক্সের ইলেকট্রিক লাইনের ত্রুটি, এনেস্থিসিয়া মেশিন নষ্ট হয়ে যাওয়া, অটোক্লেভ মেশিন চালাতে যেয়ে কারেন্টের লাইন পুড়ে যাওয়া, এসি অচল, অপারেশনের যন্ত্রপাতি না থাকা, রক্ত পরিসঞ্চালনের ব্যবস্থা না থাকা সহ হাজারো সমস্যার সমাধান করে ওটি কমপ্লেক্স চালু করা হয়।

ব্যাক্তিগত উদ্দ্যোগে এনেস্থেশিয়া মেশিনের ব্যবস্থা করাসহ এই কাজে মূল দ্বায়িত্ব পালন করেন ইউএইচএফপিও ডা. মধু সুধন ধর। এছাড়াও উপজেলার গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ বিভিন্নভাবে সহযোগিতা করেছেন একাজে।

শু ২৫ আগস্ট দুপুর ৩টায় গাইনী কনসাল্টেন্ট ডা. হাসিনা চৌধুরী, অ্যানেস্থেসিয়া কনসাল্টেন্ট ডা. সোনিয়া লতিফ, মেডিকেল অফিসার ডা. শারমিন আরা আশা অপারেশন সম্পন্ন করেন। পেডিয়াট্রিক্স কনসালটেন্ট ডা. এবিএম ওসমান হায়দার চৌধুরী বাচ্চার চিকিৎসা নিশ্চিত করেন। অর্থোপেডিক্স কনসাল্টেন্ট ডা. রাজিব পল সহ সকল মেডিকেল অফিসার এ সময় উপস্থিত ছিলেন।
এছাড়াও নার্সিং সুপারভাইজার, নার্সিং ইনচার্জ সহ সকলে অপারেশন থিয়েটারের সুষ্ঠ পরিচালনা নিশ্চিত করেন।

সুনামগঞ্জ জেলার সিভিল সার্জন ডা. আহমদ হোসেন শুরু থেকেই এই সার্ভিস শুরু করার জন্যে আমাদের সহযোগীতা ও প্রয়োজনীয়
দিকনির্দেশনা দিয়েছেন।

সিজারিয়ান সেকশন অপরেশনের উদ্বোধন উপলক্ষ্যে হাসপাতালে আসেন ইউএনও মোঃ সাজেদুল ইসলাম মহোদয়, জগন্নাথপুর থানার ওসি মোঃ মিজানুর রহমান মহোদয়, উপজেলা আওয়ামী লীগের সেক্রেটারি মোঃ রেজাউল করিম রিজু মহোদয়,পৌরসভার কাউন্সিলর মোঃ কামাল হোসেন সাহেব।

এই শুভদিনে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সকল মেডিকেল অফিসার, নার্স, মিডওয়াইফ সহ সকল স্টাফকে অভিনন্দন, তাদের সহযোগীতা ছাড়া এই উদ্যোগ সফল হত না। জগন্নাথপুর উপজেলার স্বাস্থ্য সেবার উন্নতিকরণে তাদের সর্বাত্মক চেষ্টা অব্যহত থাকবে।


Leave a Reply

Your email address will not be published.