মাছ পরিবহনের আড়ালে অভিনব কৌশলে ইয়াবা পাচার কালে ডিএনসি’র ঢাকা মেট্রো (উত্তর) এর কর্মকর্তা দের হাতে ১১,৫০০ পিস ইয়াবা ও ট্রাক সহ ৩ জন আটক

Uncategorized আইন ও আদালত

নিজস্ব প্রতিবেদক ঃ ডিএনসি’র ঢাকা মেট্রো কার্যালয় (উত্তর) এর কর্মকর্তারা মাদক বিরোধী বিশেষ এক অভিযান পরিচালনা করে ১১,৫০০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার সহ মাদক পরিবহনের ট্রাক জব্দ এবং ৩ জন চিহ্নিত মাদক ব্যাবসায়ী কে আটক করেছেন, এ খবর সংশ্লিষ্ট সুত্রের,

জানা গেছে, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর (ডিএনসি) প্রতিষ্ঠার সূচনালগ্ন থেকেই মাদক নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে অত্যন্ত আন্তরিকতা ও নিষ্ঠার সাথে কাজ করে আসছে। মাদকদ্রব্য উদ্ধার ও মাদক ব্যবসায়ীদের গ্রেফতারসহ নেশার মরণ ছোবল থেকে তরুণ সমাজকে রক্ষা করার জন্য রাজধানী সহ সারা দেশে মাদক চোরা চালান ও মাদক ব্যবসায়ীদের তৎপরতা রোধকল্পে ঢাকা মহানগরীতে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর, ঢাকা মেট্রো কার্যালয় (উত্তর) এর জোরালো তৎপরতা অব্যাহত আছে।

এরই অংশ হিসেবে, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর, ঢাকা মেট্রো কার্যালয় (উত্তর) এর উপ-পরিচালক মোঃ রাশেদুজ্জামান এর সার্বিক তত্বাবধানে তেজগাঁও সার্কেল পরিদর্শক হাওলাদার মো: সিরাজুল ইসলাম এর নেতৃত্বে গঠিত টিম রবিবার ২৮ আগস্ট নারায়নগঞ্জ সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধীন সানারপাড় এলাকায় একাদিক অভিযান পরিচালনা করে। উক্ত মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা কালে মাদক ব্যবসায়ী মো: কামরুল হাসান (৩৬) কে ১০০ পিস ইয়াবা সহ গ্রেফতার করা হয় ।

পরবর্তীতে তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে একই এলাকায় কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী ও তার সঙ্গী নয়ন পাটোয়ারী (৩৫) এর বাসা নাহার ভিলার ৪র্থ তলায় অভিযান পরিচালনা করে ৭৪০০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা করা। অভিযানের খবর জানতে পেরে নয়ন পাটোয়ারী (৩৫) পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়।

এই আসামীরা দীর্ঘদিন ধরে সীমান্তবর্তী জেলা টেকনাফ হতে নিষিদ্ধ অ্যামফিটামিন যুক্ত ইয়াবা ট্যাবলেট এনে ঢাকাসহ দক্ষিাঞ্চলের জেলা সমূহে সরবরাহ করে আসছে বলে অধিদপ্তরের কাছে তথ্য রয়েছে। পলাতক আসামীকে গ্রেফতারে চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

এছাড়া “কক্সবাজার এলাকা হতে মাছ পরিবহনের ট্রাকে করে বিপুল পরিমাণ ইয়াবা ঢাকায় আনা হচ্ছে” এমন তথ্যের ভিত্তিতে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় রবিবার ২৮ আগস্ট তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল এলাকায় উক্ত মাছ বোঝাই ঢাকা মেট্রো- ড- ১৪-০৭১৯ রেজিস্ট্রেশন নাম্বারধারী ট্রাকটিকে ড্রাইভার, মো: জসিম উদ্দিন (৩৫) ও তার সহযোগী, মো: ইছাক (২৬) কে আটক করা হয়।

তাদের দেহ ও ট্রাক তল্লাশি মো: জসিম এর নিকট হতে ২০০০ পিস ইয়াবা ট্যবলেট ও মো: ইছাক হতে আরো ২০০০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট সহ মোট ৪০০০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়।
জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় তারা দীর্ঘদিন ধরে পরস্পর যোগসাজসে কক্সবাজার হতে মাছ পরিবহনের আড়ালে ইয়াবা পরিবহন করে আসছে।

পৃথক এই দুই অভিযানে সর্বমোট ১১৫০০ (এগার হাজার পাঁচশত) পিস ইয়াবা ট্যাবলেট সহ ৩(তিন) জন আসামি ও ১ টি ট্রাক জব্দ করা হয়।

এই ঘটনায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের তেজগাঁও সার্কেল পরিদর্শক হাওলাদার মো: সিরাজুল ইসলাম ও উপ-পরিদর্শক আসহাবউদ্দিন আহাম্মদ চৌধুরী বাদী হয়ে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে সংশ্লিষ্ট থানায় পৃথক ২ টি মামলা দায়ের করেন।

সরকার ঘোষিত মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি ও দেশকে মাদকমুক্ত করার অঙ্গীকার বাস্তবায়নে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের এরকম আরো অভিযান অব্যাহত থাকবে।


Leave a Reply

Your email address will not be published.