সমন্বিত পরিকল্পনার সমন্বিত বাস্তবায়নেই উন্নয়নের ফলপ্রসূ সুফল পৌঁছে দেওয়া যায় – ঢাদসিক মেয়র ব্যারিস্টার শেখ তাপস

Uncategorized অন্যান্য


নিজস্ব প্রতিবেদক ঃ সমন্বিত পরিকল্পনার সমন্বিত বাস্তবায়ন হলেই কেবল উন্নয়নের ফলপ্রসূ সুফল জনগণের কাছে পৌঁছে দেওয়া যাবে বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ঢাদসিক) মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস।

মঙ্গলবার ২২ নভেম্বর, রাতে বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব প্ল্যানার্স (বিআইপি) আয়োজিত “বঙ্গবন্ধুর নগর ভাবনা ও বাংলাদেশ ২০৪১: স্বপ্ন, সম্ভাবনা ও বাস্তবায়নের পথনকশা” শীর্ষক গোলটেবিল আলোচনায় অংশ নিয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ঢাদসিক) মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস এ কথা বলেন।

ঢাদসিক মেয়র ব্যারিস্টার শেখ তাপস বলেন, “আমি মনে করি পরিকল্পনার কোনও বিকল্প নেই। প্রথম কাজটিই হলো পরিকল্পনা। প্রথমে সমন্বিত পরিকল্পনা করতে হবে এবং সেই পরিকল্পনা বাস্তবায়নে সমন্বিত উন্নয়ন করতে হবে। আমরা যদি এভাবে করতে পারি, তাহলে সেই উন্নয়নের ফলপ্রসূ সুফল জনগণের কাছে পৌঁছে দিতে পারব। কিন্তু সেবাদানকারী সংস্থাগুলো কেবল প্রকল্পভিত্তিক উন্নয়ন করছে। এতে হয়তো আমরা কিছুটা সুফল দিতে পারছি।”

সমন্বিত পরিকল্পনার ঘাটতির কয়েকটি উদাহরণ টেনে ঢাদসিক মেয়র ব্যারিস্টার শেখ তাপস বলেন, “আমি দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকেই বলেছি — আমাদের সাথে আপনাদের (অন্যান্য সেবাদানকারী সংস্থাগুলো) সমন্বয় করতে হবে এবং তা পরিকল্পনার পর্যায়েই করতে হবে। অনেক কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার পরে আমরা এখন সেটার কিছুটা ফল পাওয়া আরম্ভ করেছি।

তার প্রেক্ষিতে এমআরটি’র প্রকল্প পরিচালক তাদের বিদেশি পরামর্শকসহ আমার সাথে বৈঠকে বসলেন৷ আমি বিদেশি পরামর্শককে সেই যাত্রাপথে যাত্রী সংখ্যা, যাত্রী চাহিদা নিরূপণ, এই যাত্রাপথের ইকোনমিক ভায়াবিলিটি কি ইত্যাদি বিষয় জিজ্ঞেস করলাম। তখন বিদেশি পরামর্শক অকপটে স্বীকার করলেন — এগুলোর কোনটিই তার ফিজিবিলিটি স্টাডিতে নেই। শুধুমাত্র স্পেকুলেশনের ওপর ভিত্তি করে আনুমানিক চিন্তায় তাদের সম্ভাব্যতা যাচাই করা হয়েছে।”

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুর রহমান, “আমরা যদি উন্নত বিশ্বে গিয়ে শপিং করা, বিলাসিতা করা ইত্যাদিতে সময় না কাটিয়ে সেসব দেশের সামগ্রিক ব্যবস্থাপনা ও কার্যক্রম অনুসরণও করি, তাহলেও তা বড় ধরনের সুফল বয়ে আনবে।”

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেন, “ঢাকাকে বাঁচানোর জন্য ঢাকার বাইরের শহরগুলোকে যথাযথভাবে ক্ষমতায়ন করা জরুরি।”

বিআইপি’র সভাপতি পরিকল্পনাবিদ ফজলে রেজা সুমনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক পরিকল্পনাবিদ শেখ মুহম্মদ মেহেদী আহসানের সঞ্চালনায় গোলটেবিল বৈঠকে সংসদ সদস্যদের মধ্যে ঢাকা-৮ আসনের রাশেদ খান মেনন, লক্ষীপুর-৪ আসনের আবদুল মান্নান, শরীয়তপুর-৩ আসনের নাহিম রাজ্জাক, সিলেট-৩ আসনের হাবিবুর রহমান, মহিলা আসন-১১ এর আরমা দত্ত, গাইবান্ধা-১ আসনের শামীম হায়দার পাটোয়ারী বক্তব্য রাখেন।

এছাড়াও অনুষ্ঠানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল, বুয়েটের স্থাপত্য ও পরিকল্পনা অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. ইশরাত ইসলাম, নগর গবেষণা কেন্দ্রের ভাইস-চেয়ারম্যান অধ্যাপক গোলাম মর্তুজা প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।


Leave a Reply

Your email address will not be published.