রাজশাহীতে দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি

Uncategorized অন্যান্য


নিজস্ব প্রতিবেদক ঃ রাজশাহীতে দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়েছে অরাজনৈতিক স্বেচ্ছাসেবী সামাজিক সংগঠন জননেতা আতাউর রহমান স্মৃতি পরিষদ। মঙ্গলবার (১৩ ডিসেম্বর) বেলা ১১টায় নগরীর সাহেব বাজার জিরো পয়েন্টে এক মানববন্ধনে সংগঠনটি এ দাবি জানায়।

মূলত দুদফা দাবিতে এ মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়। দাবি দুটি যথাক্রমে, জেলার দুর্গাপুরে বঞ্চিত অস্বচ্ছল বীর মুক্তিযোদ্ধাদের বীর নিবাস প্রকল্পের ঘর বরাদ্দ প্রদান ও গোদাগাড়ীর পাকড়িতে ওয়াকফ স্টেটে গুচ্ছগ্রাম নির্মাণ প্রকল্পের নামে ফসলি জমি নষ্ট বন্ধ করা। কর্মসূচিতে সভাপতিত্ব করেন ভাষাসৈনিক পরিবারের সদস্য, রাজশাহী প্রেসক্লাব ও জননেতা আতাউর রহমান স্মৃতি পরিষদ সভাপতি সাইদুর রহমান।

সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মো. আসলাম-উদ-দৌলার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত এ মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট কলামিস্ট ও রাজশাহী প্রেসক্লাবের আজীবন সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রশান্ত কুমার সাহা। এ সময় অন্যান্যের মাঝে বিটিসি নিউজের সম্পাদক খন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান রেজা, জননেতা আতাউর রহমান স্মৃতি পরিষদের সহঃ সভাপতি সালাউদ্দিন মিন্টু, প্রচার সম্পাদক সাংবাদিক আমানুল্লাহ আমান, সিনিয়র সদস্য ও আওয়ামী লীগ নেতা মো. শরিফ উদ্দিনসহ আরও অনেকে বক্তব্য রাখেন।

সভায় বক্তারা বলেন, চায়ের টেবিলে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়নি। ৩০ লাখ শহীদের রক্তের বিনিময়ে স্বাধীন হয়েছে বাংলাদেশ। যারা অস্ত্র হাতে যুদ্ধ করে দেশকে স্বাধীন করেছেন, তাদের জন্য বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ‘বীর নিবাস’ প্রকল্প অত্যন্ত প্রশংসনীয় উদ্যোগ। কিন্তু এ প্রকল্পকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে রাজশাহীর দুর্গাপুরে অস্বচ্ছল বীর মুক্তিযোদ্ধাদের বাদ দিয়ে ঘর বরাদ্দ দেয়া হয়েছে বিত্তবানদের নামে।

এছাড়া গোদাগাড়ীর পাকড়িতে ওয়াকফ স্টেটে গুচ্ছগ্রাম নির্মাণ প্রকল্পের নামে ফসলি জমি নষ্ট করা হচ্ছে। অথচ ওই উপজেলায় গুচ্ছগ্রাম নির্মাণের মত জায়গা আরও রয়েছে। তারা বলেন, লুটেরা-দুর্নীতিবাজরা জনগণের শত্রু। তাদের বিরুদ্ধে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।

দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তাদের উদ্দেশে বক্তারা বলেন, জনগণের ট্যাক্সের পয়সায় আপনাদের বেতন হয়। জনগণের সঙ্গে ছিনিমিনি খেলবেন না এদিন সেই দিন নয়, আরও দিন আছে। জবাবদিহি করতে হবে জনগণের কাছে। প্রধানমন্ত্রী দুর্বল নন। তিনি দয়া দেখাচ্ছেন বলে দুর্বলতা ভাববেন না। দুর্নীতিবাজদের ব্যাপাওে শেখ হাসিনা খোঁজখবর রাখছেন।
এ সময় বিভিন্ন প্রকল্পে অনিয়ম-দুর্নীতির সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান তারা।

এদিন মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী আদালতের আইনজীবী নাসির উদ্দিন, জননেতা আতাউর রহমান স্মৃতি পরিষদের বোয়ালিয়া থানা কমিটির আহবায়ক সাগর নোমানী, ২৬ নম্বর ওয়ার্ড আহবায়ক মো. ইউসুফ, সদস্য মো. মাজেদুর, জুবায়ের আলম রাজন, হারুনর রশীদ, আরিফুল ইসলাম আরিফ, ইরিন ইরা, সাহিদ সোনু, ইকবাল হাসান টাইগার, সালাউদ্দিন আহমেদ সোহাগ, সাহিদ সনু ও গোদাগাড়ীর পাকড়ি এলাকার স্টেটের এনায়েতুল্লাহ সূর্য, ইয়াদ আলী, জামিল আলী, রিংকু আহমেদ, রজব আলী, হেলাল উদ্দিন, রবিউল, শহিদুল, কৃষক আনারুল শেখ, সানাউল্লাহ শেখ, শান্ত শেখ, হৃদয় আলী, হায়দার আলী, মালেক আলী, নাজমুল ইসলাম, কামাল, শিরাজ প্রমুখ।


Leave a Reply

Your email address will not be published.