ভারতের মুর্শিদাবাদে জেএমবি সদস্য গ্রেপ্তার

আন্তর্জাতিক

বাংলাদেশের নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন জামাত-উল-মুজাহিদিনের (জেএমবি) এক সদস্যকে ভারতের মুর্শিদাবাদে গ্রেপ্তার করেছে।  আজ বুধবার ত্রিপুরা পুলিশের বরাত দিয়ে এই তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।

ত্রিপুরা রাজ্যের পুলিশ প্রধান (ডিজিপি) এ কে শুক্লা জানিয়েছেন, আটক জেএমবি সদস্যের নাম নাম নাসির শেখ। তিনি জঙ্গি  সংগঠনের সক্রিয় সদস্য। ইতিমধ্যেই তাকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

ভারতের বিভিন্ন জায়গার মতো ত্রিপুরাতেও নিজেদের নেটওয়ার্ক তৈরি করেছে এই জঙ্গি সংগঠন।  নাসিরের মাধ্যমে কোনো কোনো জায়গায় এই সংগঠনের নেটওয়ার্ক আছে তা জানার চেষ্টা করছে পুলিশ। তাছাড়া কোনো নাশকতার পরিকল্পনা তারা করেছিল কিনা  সেটাও জানার চেষ্টা হচ্ছে।

গত কয়েক বছরের মধ্যে ভারতের নিরাপত্তা সংস্থাগুলোর কাছে চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে জেএমবি। কয়েকটি বিস্ফোরণ কাণ্ডে তাদের নাম জড়িয়ে গিয়েছে ইতিমধ্যে।

২০১৪ সালের ২ অক্টোবর বর্ধমানের খাগড়াগড় এবং বুদ্ধগয়া বিস্ফোরণ কাণ্ডে এই সংগঠন জড়িত বলে ভারতীয় গোয়েন্দাদের দাবি। খাগড়াগড়ে রীতিমতো প্রশিক্ষণ শিবির খুলে ফেলেছিল জঙ্গিরা।  সেখানে মজুত করে রাখা বোমা ফেটে না গেলে এত বড় একটি ঘটনা জানতে আরও দেরি হতো বলে জানিয়েছে ভারতের জাতীয় নিরাপত্তা সংস্থা (এনআইএ)।

গত মাসেই জামাত-উল-মুজাহিদিনের আরও দুই সদস্যকে গ্রেপ্তার করে কলকাতা পুলিশের স্পেশাল টাস্কফোর্স। মুর্শিদাবাদ থেকে গ্রেপ্তার হওয়া মশিবুর রহমান ওরফে ফারুক এবং রুহুল আমিন ওরফে শফিউল্লাহ-দুজনই বিস্ফোরক তৈরিতে পারদর্শী।  তাদের কাছ থেকে বিস্ফোরক তৈরিতে কাজে লাগে এমন অনেক উপাদান পাওয়া গেছে।

বর্ধমানের খাগড়াগড় বিস্ফোরণ কাণ্ড সঙ্গে এই দুজনের যোগাযোগ আছে বলে মনে করা হচ্ছে।  তবে নাসের শেখ এ ধরনের কোনো ঘটনার সঙ্গে জড়িত কিনা তা জানার চেষ্টা করছেন তদন্তকারী কর্মকর্তারা।       


Leave a Reply

Your email address will not be published.