মেডিসেফ ইউনানী কর্তৃক অন-অনুমোদিত ঔষধ ও কসমেটিক্স বাজারজাতকরনের অভিযোগ

Uncategorized অপরাধ আইন ও আদালত জাতীয় ঢাকা বিশেষ প্রতিবেদন রাজধানী সারাদেশ সাস্থ্য

 

 

নিজস্ব প্রতিবেদক :  ইউনানী ঔষধ কোম্পানী মেডিসেফ এবং এমএলএম প্রতিষ্ঠান লুমিনাস যৌথভাবে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর এর অনুমোদন ব্যতিত ভেজাল ও নিম্ন মানের ঔষধ ও প্রসাধনী বিভিন্ন ট্রেডনাম দিয়ে বহু-স্তর বিপণন পদ্ধত্বিতে (এমএলএম) বাজারজাত করছে বলে জানাগেছে।


বিজ্ঞাপন

প্রচলিত বাজারদরের তিন থেকে চারগুন মূল্যে পণ্য বিক্রি করছে। তাদের বেশির ভাগ ঔষধ আইটেম ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর কর্তৃক অনুমোদিত নয়। আবার উৎপাদিত ও বাজারজাতকৃত প্রসাধনী আইটেমও বিএসটিআই বা ঔষধ প্রশাসন কর্তৃক অনুমোদিত নয়।

মেডিসেফ ইউনানী ব্যালেন্স প্লাস, গো ফ্রেস, উইম্যান হেলথ, সেফটিক্যাল-ডি, পেইন ফ্রেস, মেডিসেফ ডায়া,জিরো পাইলস, ইজি সিলিম, ইয়ো ফ্রেস,ব্যালেন্স প্রেসার, এ্যাজমা সেফ, থ্রোম্যাক্স ও সেফ হার্ট ট্রেডনামে ঔষধি আইটেম এবং মিরাকল টুথপেস্ট ও মিরাকল সোপ ট্রেডনামে দু’টি প্রসাধনী এমএলএম প্রতিষ্ঠান ”লুমিনাস” এর মাধ্যমে বাজারজাত করছে।

এইসব ইউনানি ঔষধ সামগ্রী মেডিসেফ ইউনানি ও লুমিনাস নামক প্রতিষ্ঠান বাজারজাত করছে।

 

উপরোক্ত ঔষধে ইউনানী ফর্মুলারী অনুযায়ী ভেষজ উপকরন ব্যবহারের পরিবর্তে অনুনোমোদিত ক্ষতিকর কেমিকেল ব্যবহার করা হয়। তাছাড়া,ঔষধের ট্রেডনাম অতিব বিদঘুটে যা ইউনানী ঔষধের নামের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়।

প্রচলিত আইনে এমএলএম পদ্ধত্বিতে ঔষধের বাজারজাতকরন বেআইনী। ইউনানী ঔষধ কোম্পানী ”মেডিসেফ” এবং এমএলএম প্রতিষ্ঠান ”লুমিনাস” কর্তৃক অনুনোমোদিত, ভেজাল ও নিম্নমানের ঔষধ বাজারজাতকরনের ফলে একদিকে জনসাধারন প্রতারিত হচ্ছে অন্যদিকে জনস্বাস্থ্য বিপর্যয়ের সম্মুখীন হচ্ছে।

বৃহত্তর জনস্বার্থে ইউনানী ঔষধ কোম্পানী ”মেডিসেফ” এর অবৈধ কার্যক্রমের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহন করার জন্যে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর এর প্রতি দাবি জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টমহল।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *