নিজেদের সবচেয়ে বিপজ্জনক গোয়েন্দাকে মুক্তি দিল যুক্তরাষ্ট্র

Uncategorized আন্তর্জাতিক


কুটনৈতিক বিশ্লেষক ঃ আনা মন্টেস, যুক্তরাষ্ট্রের ডিফেন্স ইন্টেলিজেন্স এজেন্সিতে এনালিস্ট হিসেবে কর্মরত ছিলেন কোল্ড ওয়ারের সময় । কিন্তু বাস্তবিক অর্থে ছিলেন একজন অনন্য অসাধারণ ডাবল এজেন্ট। তিনি কিউবার পক্ষে হয় ডাবল এজেন্ট হিসেবে নিয়োজিত ছিলেন।তিনি কিউবায় যুক্তরাষ্ট্রের পুরো গোয়েন্দা অপারেশনই প্রকাশ করে দিয়েছিলেন। একজন কর্মকর্তা বলেছিলেন, যুক্তরাষ্ট্র ওই সময় পর্যন্ত যেসব ক্ষতিকর গোয়েন্দাকে আটক করেছে, তার মধ্যে আনা মন্টেস ছিলেন অন্যতম।

সাবেক প্রেসিডেন্ট জর্জ ডব্লিউ বুশের অধীনে কাউন্টার-ইন্টেলিজেন্সের প্রধান মিশেলে ভ্যান ক্লিভ ২০১২ সালে কংগ্রেসে বলেন যে, কার্যত গোপনীয় সব তথ্যই পাচার করেছেন মন্টেস। এর মধ্যে আমরা কিউবা সম্পর্কে যা জানি এবং সেখানে আমরা কিভাবে অপারেশন পরিচালনা করি, তার সবটাই তিনি পাচার করেছেন। তাই আমাদের সব কিছু সম্পর্কে কিউবানরা ছিলেন অবগত।

কিন্তু ২০০১ সালে যুক্তরাষ্ট্রের কাউন্টার ইন্টেলিজেন্সির হাতে ধরা পড়ে যান তিনি।গ্রেপ্তারের পর মন্টেসকে যুক্তরাষ্ট্রের চারজন গুপ্তচরের পরিচয় কিউবার কাছে সরবরাহের অভিযুক্ত করা হয়। গোপন ম্যাটেরিয়ালের ভাণ্ডার তিনি খুলে দিয়েছিলেন। এ জন্য তাকে পুরো জাতিকে ঝুঁকিতে ফেলার জন্য বিচারক শাস্তি দেন। ২৫ বছরের জেল ঘোষণা করা হয়। চলতি সপ্তাহে তাকে মুক্তি দেওয়া হয়েছে। তার বর্তমান বয়স ৭৩ বছর। (তথ্য সূত্র ঃ ডিফেন্স রিসার্চ ফোরাম)


Leave a Reply

Your email address will not be published.